এক আলোর ফেরিওয়ালা অনুপ সাদি

  • খায়রুল আলম রতন, লেখক ও অধ্যাপক

অনুপ সাদি এক আলোর ফেরিওয়ালা শিক্ষাবিদ, পরিবেশবিদ, সমাজচিন্তক, প্রগতিশীল লেখক। গফরগাঁও-এ তার আগমন অনেকটা ঝড়ের মতোন। ২০০৬ সনের ফেব্রুয়ারি মাসে দিনাজপুরের ফুলবাড়ি কলেজ হতে বদলি হয়ে গফরগাঁও সরকারি কলেজ, ময়মনসিংহে যোগদান করেন। ইংরেজি বিভাগে এই তরুণ প্রভাষক যোগদানের পর থেকেই বিভাগের শিক্ষার্থীরা প্রাণ ফিরে পায়।

অনুপ সাদি অল্প দিনেই কলেজে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। শিক্ষাদানের নতুন নতুন কৌশল প্রয়োগ করে শিক্ষা ব্যবস্থায় এক নতুন যুগের সূচনা করেন। আগে যেখানে ইংরেজিতে পাশের হার ছিল ২০%, সেখান থেকে উন্নীত করে ৮০% নিয়ে যায় পাশের হার। এতে করে শিক্ষার্থীরা আঠার মতো লেগে থাকতো তার পিছনে। মান্ধাতা আমলের এক ডাস্টার বোর্ড পরিবর্তন করে হোয়াইট বোর্ড স্থাপন, ক্লাসে আধুনিক সাউন্ড সিস্টেম স্থাপন সম্ভব হয়েছে অনুপ সাদির প্রচেষ্টার ফলে।

গফরগাঁও সরকারি কলেজ প্রায় ৫ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত। অথচ ক্যাম্পাসে গাছপালা বলতে কিছু মেহগনি গাছ ও রেইনট্রি ছাড়া কোনো গাছপালা ছিল না। কলেজে যোগদানের পর থেকেই অনুপ সাদিসহ কয়েকজন সহকর্মী মিলে কলেজ ক্যাম্পাসে বিপন্ন প্রজাতির নানান গাছ রোপণ করেন। ক্যাম্পাসের পূর্ব প্রান্তে কলা ভবনের সামনে একটি বটগাছ যা কালের সাক্ষী হিসেবে দণ্ডায়মান। সারা গফরগাঁওয়ে মাত্র দুটি পলাশ ফুলের যে গাছ দেখা যায়, তাও অনুপ সাদির রোপণ করা। এটি একটি বিরল দৃষ্টান্ত।

অনুপ সাদি একাধারে কবি, গল্পকার, প্রাবন্ধিক। সমসাময়িক রাজনীতি, সমাজনীতি বিষয়ক প্রবন্ধ লিখে খ্যাতি অর্জন করেছেন। উইকিপিডিয়ায় তার সহস্রাধিক প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। সমাজ পরিবর্তনের ব্রত নিয়ে যে আন্দোলন তিনি শুরু করেছিলেন, তা তিনি ছড়িয়ে দিয়েছেন শিক্ষার্থীদের মাঝে। অনেক শিক্ষার্থী তার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রগতিশীল ও মুক্ত চিন্তার সংগ্রামী হিসেবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

পরিবেশ রক্ষায় গাছ রোপণের কোনো বিকল্প নেই। অনুপ সাদির প্রচেষ্টায় গফরগাঁও সরকারি কলেজের নবীন বরণে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মাঝে কয়েক হাজার গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছিল; যা ছিল গফরগাঁও কলেজের ইতিহাসে এক নজির বিহীন ঘটনা। কলেজ ক্যাম্পাসে অনুপ সাদি ও অন্যান্য সহকর্মীদের প্রচেষ্টায় প্রায় ২০০টি বিরল প্রজাতির বনজ, ঔষধি ও ফলদ বৃক্ষ লাগানো হয়েছিল, যা ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে এখনও দাঁড়িয়ে আছে। এসব গাছের ভেতরে আছে অশোক, বিলিম্বী, কুম্ভি, পলাশ, শিমুল, লোহাকাঠ, ডোরা মান্দার, মহুয়া, চাঁপা, ঝুরিবট, তালসহ নানা জাতের বৃক্ষ।

পরিবেশ রক্ষায় সামাজিক আন্দোলনের অগ্রসৈনিক অনুপ সাদি। সাংবাদিক ও কবি শফিকুল কাদির সমেত পরিবেশ রক্ষায় ফলদ ও ঔষধি গাছ লাগানোর জন্য গফরগাঁওয়ের হাটবাজার, স্কুল, কলেজে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন করেন। পরিবেশ নষ্ট করে এমন আগ্রাসী গাছ লাগানো থেকে বিরত থাকা এবং পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য রক্ষার জন্য পরিবেশ বান্ধব গাছ লাগানোর জন্য ব্যানার, পোস্টার ও লিফলেট বিতরণ করেন। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝেও গাছের চারা বিতরণ করেছেন।

গ্রাম পর্যায়ে পাঠাগার স্থাপন অনুপ সাদির আরেকটি যুগান্তকারী উদ্যোগ। কবি শফিকুল কাদির প্রতিষ্ঠিত গ্রাম সাহিত্য কেন্দ্র ও পাঠাগার স্থাপনে অন্যতম অনুপ্রেরণাদাতা এই অনুপ সাদি। গফরগাঁও সরকারি কলেজের গ্রন্থাগারের জন্য সৃজনশীল বই পুস্তক সংগ্রহ ও সমৃদ্ধ করার অন্যতম কারিগর অনুপ সাদি। অনুপ সাদির হাত ধরেই গফরগাঁও সরকারি কলেজ গ্রন্থাগার সমৃদ্ধ হয়েছে।

গ্রুপ স্টাডি বা স্টাডি সার্কেল গঠন করে গফরগাঁও সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসের মাঠকে প্রতি সপ্তাহেই অনুপ সাদি মিলন মেলায় পরিণত করতেন। এতে করে শিক্ষার্থীরা মুক্ত চিন্তা, কবিতা, গল্প, সমালোচনা, রাজনীতি, সমাজনীতি ইত্যাদি বিষয়ে পারদর্শী হয়ে ওঠে। এদের কেউ কেউ এখন স্বনামধন্য কবি, কেউ সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। উন্মুক্ত বিতর্ক, সমসাময়িক বিজ্ঞান বিষয়ক প্রবন্ধ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কীভাবে নিজেদেরকে গড়ে তুলতে পারে তার দীক্ষা পেত এই স্টাডি সার্কেলের মধ্যে।

কলেজের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ প্রমাণ করে কীভাবে অনুপ সাদি শিক্ষার্থীদের মনোজগতে নাড়া দিয়েছিলেন। সাধারণ জ্ঞান, কুইজ প্রতিযোগিতা ও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের নানা ভাবে পরামর্শ ও মুক্ত ক্লাসের মাধ্যমে গাইডলাইন দিতেন অনুপ সাদি। অনেক শিক্ষার্থী নামকরা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির মাধ্যমে প্রমাণ দিয়েছে, নেপথ্যে যিনি প্রেরণা দিয়েছেন তিনি অনুপ সাদি। আমরা এই জ্ঞানতাপসের শতায়ু কামনা করছি।

১৩-১৪ অক্টোবর ২০২২, মেরাদিয়া, ঢাকা।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: অনুপ সাদি সম্পর্কিত এই মূল্যায়নটি এনামূল হক পলাশ সম্পাদিত সাহিত্যের ছোট কাগজ অন্তরাশ্রম-এর অনুপ সাদি সংখ্যা, সংখ্যা ৪, পৃষ্ঠা ১৮-১৯, ময়মনসিংহ থেকে ৩০ নভেম্বর ২০২২ তারিখে প্রকাশিত এবং সেখান থেকে ফুলকিবাজ.কমে প্রকাশ করা হলো।

Leave a Comment

error: Content is protected !!