মার্কসবাদী দর্শন

মার্কসবাদী দর্শন বা মার্কসীয় দর্শন বা মার্ক্সীয় দর্শন (ইংরেজি: Marxist philosophy বা Marxian Philosophy) হচ্ছে কার্ল মার্কস ও ফ্রিডরিখ এঙ্গেলস কর্তৃক সৃষ্ট দ্বান্দ্বিক ও ঐতিহাসিক বস্তুবাদী দর্শন। মানবজাতির ঐতিহাসিক কাল থেকে সৃষ্ট প্রকৃতিবিজ্ঞান ও সমাজবিজ্ঞানের সকল জ্ঞানের সংশ্লেষণ ঘটেছে মার্কসবাদী দর্শনে। শিক্ষার্থীদেরকে মার্কসবাদী দর্শনে পূর্ণাঙ্গ জ্ঞানার্জনের জন্য এই পাতাটি তৈরি করা হয়েছে।

বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের অনার্স চতুর্থ বর্ষের কোর্স নং ২৪১৭০৩-এর মার্কসবাদী দর্শন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কসীয় দর্শন বিষয়ক সিলেবাস অনুসারে এই পাতাটি সাজানো হয়েছে। তবে সাধারণ পাঠকদের কথা চিন্তা করেও এখানে আলোচনা করা হয়েছে। আপনারা নিচের বিষয়গুলোতে ক্লিক করে লেখাগুলো বিস্তারিত পড়তে পারবেন।

ক বিভাগ

দর্শনের উৎস ও প্রকৃতি সম্পর্কে মার্কসবাদী মত

মার্কসবাদের উদ্ভব

দ্বান্দ্বিক বস্তুবাদ

দ্বান্দ্বিক বস্তুবাদের প্রধান বৈশিষ্ট্যসমূহ এবং মূলনীতিসমূহ।

মার্কসবাদী জ্ঞানতত্ত্ব: ঐতিহ্যবাহী জ্ঞানতত্ত্বের সমালোচনা, জ্ঞানের আত্মগত ও নৈর্বক্তিক দিক, জ্ঞানে অনুশীলনের ভূমিকা, ধারণাগত ও প্রত্যক্ষণ জ্ঞান, জ্ঞান ও সত্য।

দ্বান্দ্বিক যুক্তিবিদ্যা: মার্কসবাদ ও ঐতিহ্যগত যুক্তিবিদ্যা, হেগেলের দ্বান্দ্বিক যুক্তিবিদ্যা, হেগেলের বস্তুবাদী দ্বান্দ্বিক যুক্তিবিদ্যা, দ্বান্দ্বিক যুক্তিবিদ্যা ও আনুষ্ঠানিক যুক্তিবিদ্যা।

খ বিভাগ

মার্কসবাদী বস্তুবাদ: ইতিহাসের বস্তুবাদী ধারণা, ভিত্তি ও উপরিকাঠামো, অর্থনৈতিক নির্ধারণবাদ।

শ্রেণি-ধারণা

অর্থনৈতিক দর্শন: উদ্বৃত্ত মূল্য তত্ত্ব, উদ্বৃত্ত মূল্য ও শোষণ, বণ্টনের নীতি।

দার্শনিক নৃতত্ত্ব: মানব প্রকৃতি সম্পর্কে মার্কসবাদী ধারণা, বিচ্ছিন্নতার সমস্যা, নৈতিকতার ধারণা, মার্কসবাদী মানবতাবাদ।

সাম্প্রতিক প্রবণতা: পাশ্চাত্য মার্কসবাদ, বিশ্লেষণাত্মক মার্কসবাদ, আদর্শিক মার্কসবাদ।

error: Content is protected !!