মানব জাতি এবং তার করণীয় প্রসঙ্গে মাওবাদ

মানব জাতি

মানব জাতি (ইংরেজি: Humankind) এবং তাদের করণীয় সম্পর্কে কার্ল মার্কস থেকে মাও সেতুং সকল মহান চিন্তাবিদ মতামত প্রদান করেছেন এবং অনুশীলন ও পরীক্ষণ চালিয়েছেন। মাওবাদী চিন্তাধারা মানুষকে সবচেয়ে শক্তিশালী উপাদান হিসেবে দেখেছে। বিশেষভাবে পূর্ব ইউরোপ এবং সোভিয়েত ইউনিয়নে কমিউনিস্ট পার্টির সরকারসমূহের পতনের পর থেকে, পশ্চিমা সরকারগুলি কল্পনা করেছে যে মাওবাদ একটি ঐতিহাসিক এবং রাজনৈতিক ঘটনা … Read more

মানব প্রকৃতি তৈরির চেষ্টা হয়েছে সমাজের অর্থনীতির উপরে ভিত্তি করে

মানুষের স্বরূপ

মানব প্রকৃতি বা মানুষের স্বরূপ (ইংরেজি: Human nature) তৈরির চেষ্টা করেছেন সেইসব দার্শনিক ও লেখকবৃন্দ যারা তাঁদের সমাজের ভেতরে থেকে নিজ শ্রেণির হয়ে কাজ করেছেন। এসব কারণে দাস সমাজের দার্শনিকেরা সেই দাসত্বকে নীতিসম্মতভাবে উপস্থাপন করেন, সামন্তবাদী সমাজে সামন্তবাদকে ন্যায্য প্রতিপন্ন করেছেন। পুঁজিবাদী সমাজে পুঁজিকেই ন্যায্য হিসেবে কিছু দার্শনিক তুলে ধরেছেন। সমাজের প্রাধান্যকারী চিন্তাটি দাস, সামন্ত … Read more

সমাজতন্ত্রের ইতিহাস কয়েক শতাব্দীব্যাপী সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার ধারাবাহিক লড়াই

সমাজতন্ত্রের ইতিহাস

সমাজতন্ত্রের বাস্তব ইতিহাস বা সমাজতন্ত্রের ইতিহাসের (ইংরেজি: History of socialism) সূত্রপাত ১৭৮৯ খ্রিস্টাব্দের ফরাসি বিপ্লব ও তা থেকে উদ্ভূত পরিবর্তনগুলি থেকে, যদিও ফরাসি বিপ্লব পূর্ববর্তী আন্দোলন এবং ধারণায় সমাজতন্ত্রের নজির রয়েছে। ১৮৪৮ খ্রিস্টাব্দের বিপ্লবে ইউরোপ আলোড়িত হবার ঠিক আগে কার্ল মার্কস এবং ফ্রিডরিখ এঙ্গেলস কমিউনিস্ট ইশতেহার লিখেছিলেন যাতে তারা বৈজ্ঞানিক সমাজতন্ত্র শব্দদ্বয় দিয়ে ধারণাটিকে অভিহিত … Read more

পরিবার, ব্যক্তিগত মালিকানা ও রাষ্ট্রের উৎপত্তি গ্রন্থ প্রসঙ্গে আলোচনা

পরিবার, ব্যক্তিগত মালিকানা ও রাষ্ট্রের উৎপত্তি

পরিবার, ব্যক্তিগত মালিকানা ও রাষ্ট্রের উৎপত্তি (ইংরেজি:The Origin of the Family, Private Property, and the State: in the Light of the Researches of Lewis H. Morgan) হচ্ছে ফ্রিডরিখ এঙ্গেলস রচিত মার্কসবাদের অন্যতম মৌলিক একটি গ্রন্থ। গ্রন্থটি প্রথম ১৮৮৪ খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত হয়।[১] এই বইটি লিখে এঙ্গেলস মনে করেন যে, তিনি ‘কিয়ৎ পরিমাণে মার্কসের অন্তিম নির্দেশ পালন’ … Read more

উৎপাদনের পুঁজিবাদী পদ্ধতি হচ্ছে পুঁজিবাদী সমাজে উৎপাদন ও বণ্টনের পদ্ধতি

উৎপাদনের পুঁজিবাদী পদ্ধতি

কার্ল মার্কসের রাজনৈতিক অর্থনীতির সমালোচনা এবং পরবর্তী মার্কসীয় বিশ্লেষণে, উৎপাদনের পুঁজিবাদী পদ্ধতি (ইংরেজি: Capitalist mode of production) দিয়ে পুঁজিবাদী সমাজের মধ্যে উৎপাদন এবং বণ্টনকে সংগঠিত করার পদ্ধতিগুলিকে বোঝায়। সামন্ত-ভূমিদাস প্রথার অভ্যন্তরেই পুঁজিবাদের উদ্ভব। পুঁজির সবচেয়ে প্রাচীন রূপ হলো ব্যবসায়ী ও মহাজনী পুঁজি [commercial and usurer capital]। পুরানো স্বাভাবিক অর্থনীতির মধ্যে যতই বিনিময়-প্রথার বিকাশ ঘটতে থাকে, … Read more

সামন্তবাদ হচ্ছে দাসযুগের পরে মানুষ কর্তৃক মানুষের উপর শোষণের এক রূপ

সামন্তবাদ

সামন্তবাদ বা সামন্ততন্ত্র (ইংরেজি: Feudalism) হচ্ছে দাসমালিকদের যুগের পর, দাস-প্রথার স্থলে মানুষ কর্তৃক মানুষের উপর শোষণের এক সামাজিক আর্থিক নতুন রূপ। সামন্তবাদ সমগ্র মধ্যযুগ ধরে প্রচলিত ছিল আর এটির বিকাশের সর্বশেষ স্তর ছিল ভূমিদাস-প্রথা। সামন্তবাদ তুলনামূলকভাবে বিকাশের এক দীর্ঘ প্রক্রিয়ার অধীনস্থ ছিল। সামন্তবাদী ব্যবস্থায় বিশাল কৃষক সাধারণ সামন্ত-ভূম্যধিকারীদের (barons) এক ক্ষুদ্র দল দ্বারা শোষিত হতো। … Read more

দাস সমাজ হচ্ছে শোষণমূলক সমাজ পদ্ধতির একটি প্রাক-পুঁজিবাদী রূপ

দাস সমাজ

দাস সমাজ বা দাস-মালিকদের সমাজ বা দাসত্ব (ইংরেজি: Slavery) হচ্ছে শোষণমূলক সমাজ পদ্ধতির একটি প্রাক-পুঁজিবাদী রূপ। আদিম সাম্যবাদী সমাজের অবক্ষয়ের সাথে সমাজে শোষক ও শোষিতের বিভক্তি দেখা দেয়। এমন কিছু লোকের আবির্ভাব ঘটে যারা অন্যের শ্রমের ফল ভোগ করে বেঁচে থাকে। এক শ্রেণি কর্তৃক অপর শ্রেণির উপর শোষণ – এটাই শ্রেণি-বিভক্ত সমাজের বিকাশের বিভিন্ন স্তরকে … Read more

আদিম সাম্যবাদ হচ্ছে শিকার-সংগ্রহকারীদের উপহারের অর্থনীতিকে বর্ণনার উপায়

আদিম সাম্যবাদ

আদিম সাম্যবাদ বা আদিম গোষ্ঠীবদ্ধ সাম্যবাদ বা আদিম গোষ্ঠীবদ্ধ সমাজ (ইংরেজি: Primitive clan communism) হচ্ছে ঐতিহাসিক কাল জুড়ে শিকার-সংগ্রহকারীদের উপহারের অর্থনীতিগুলিকে বর্ণনা করার একটি উপায়, যেখানে সম্পদ ও সম্পত্তি সংগ্রহ ও একত্রিত করা হয় একটি গোষ্ঠীর সমস্ত সদস্যের সাথে এবং সেগুলোকে ব্যক্তিগত প্রয়োজন অনুসারে ভাগ করে নেওয়া হয়। ক্রমবিকাশের প্রাথমিক স্তরগুলোতে অত্যন্ত কঠিন অবস্থাধীনে মানুষকে … Read more

শ্রেণিহীন সমাজ হচ্ছে এমন সমাজ যেখানে কেউ সামাজিক শ্রেণিতে থাকে না

শ্রেণিহীন সমাজ

শ্রেণিহীন সমাজ বা শ্রেণীবিহীন সমাজ (ইংরেজি: Classless society) শব্দটি এমন একটি সমাজকে বোঝায় যেখানে কোনও সামাজিক শ্রেণিতে কেউ জন্মগ্রহণ করে না। এই ধরনের সমাজে শ্রেণির মর্যাদার উত্তরাধিকার হিসাবে অনুপস্থিত থাকে। শ্রেণিহীন সমাজতান্ত্রিক সমাজ নির্মাণ করবার লক্ষ্যেই অক্টোবর বিপ্লব সংঘটিত হয়। ১৯১৭ সালের অক্টোবর মাসে সংঘটিত রুশ বিপ্লব মানব জাতির ইতিহাসে এক নয়া অধ্যায়ের সূচনা করে। … Read more

error: Content is protected !!