আবু তাহের ছিলেন সাম্রাজ্যবাদের যুগের বামপন্থী সমাজগণতন্ত্রী বিপ্লবী

কর্নেল আবু তাহের

আবু তাহের বা কর্নেল আবু তাহের (ইংরেজি: Abu Taher; ১৪ নভেম্বর ১৯৩৮ – ২১ জুলাই ১৯৭৬) ছিলেন সাম্রাজ্যবাদের যুগের বামপন্থী সমাজগণতন্ত্রী বিপ্লবী। তিনি পাকিস্তান আমলে সামরিক কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন, ১৯৭১ সালের গণযুদ্ধে ভারতীয় বিস্তারবাদের সহায়তায় অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ সময়কালের শুরুর দিকে তিনি সমাজগণতান্ত্রিক সংগঠন জাসদের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন এবং ১৯৭৫ সালের ৬ … Read more

সুনীতি চৌধুরী ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের বিপ্লবী

সুনীতি চৌধুরী (ঘোষ ) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের নারী বিপ্লবী। তিনি ছিলেন কুমিল্লায় জন্মগ্রহণ করা বিপ্লবী। নিরীহ-দুঃস্থদের জন্য নানা সেবামূলক কাজ করেছেন।  তিনি ডাক্তার ছিলেন ও মেয়েদের রাজনীতি, অর্থনীতি, সম্পর্কে জ্ঞানী করে তোলার জন্য সাংগঠনিক কাজ করেছেন। তিনি যুগান্তর দলের সাথে যুক্ত ছিলেন। ১৯৩২ থেকে ১৯৩৯ সাল পর্যন্ত … Read more

শান্তি ঘোষ ছিলেন ব্রিটিশ বিরোধী বিপ্লবী, সমাজসেবক

শান্তি ঘোষ (দাস) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের নারী বিপ্লবী। তিনি ছিলেন কুমিল্লার নারী বিপ্লবী। নির্যাতিত মানুষের জন্য নানা সেবামূলক কাজ করেছেন।  তিনি লেখক ছিলেন ও মেয়েদের রাজনীতি, অর্থনীতি, সম্পর্কে জ্ঞানী করে তোলার জন্য সাংগঠনিক কাজ করেছেন। তিনি যুগান্তর দলের সাথে যুক্ত ছিলেন। ১৯৩২ থেকে ১৯৩৯ সাল পর্যন্ত সাত … Read more

লীলা নাগ ছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামের বিপ্লবী, লেখিকা

লীলা নাগ (জন্ম: অক্টোবর ২, ১৯০০ – মৃত্যু:জুন ১১ ১৯৭০) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের নারী বিপ্লবী। তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ছাত্রী। নারীশিক্ষার জন্য নানা সেবামূলক কাজ করেছেন।  তিনি ‘দীপালী সংঘ’ গঠন করেন মেয়েদের রাজনীতি, অর্থনীতি, সাহিত্য সম্পর্কে জ্ঞানী করে তোলার জন্য। তিনি প্রথমে কংগ্রেসে যুক্ত থাকেন এরপরে … Read more

বীণা দাস ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে বিপ্লবী ও লেখিকা

বীণা দাস ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের নারী বিপ্লবী। বীণা দাস ছিলেন কটকের নারী বিপ্লবী। তিনি লেখক ছিলেন ও মেয়েদের রাজনীতিতে উৎসাহিত করে তোলার জন্য সাংগঠনিক কাজ করেছেন। তিনি যুগান্তর দলের সাথে যুক্ত ছিলেন। গভর্নর স্ট্যালি জ্যাকসনকে হত্যার বৃথা চেষ্টা করে ১৯৩২ থেকে ১৯৩৯ সাল পর্যন্ত সাত বছর কারাবন্দী … Read more

ননীবালা দেবী ছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামী বিপ্লবী ও প্রথম মহিলা রাজবন্দি

ননীবালা দেবী ছিলেন উপনিবেশবিরোধী বিপ্লবী নারী নেত্রী। যুগান্তর দলের বিপ্লবীদের সাথে কাজ করতে গিয়ে নানা প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয়েছেন। সাহসী, ধৈর্য্যশীল, বুদ্ধিমতী ননীবালা দেবী ছিলেন প্রথম রাজবন্দি। জেল জীবনে অমানুষিক নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন; কিন্তু নিজের ব্যক্তিত্বে ছিলেন অটল।[১] ননীবালা দেবী-র জন্ম ও পরিবার: ননীবালা দেবী জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৮৮৮ সালে হাওড়া জেলার বালিতে। পিতার নাম সূর্যকান্ত ব্যানার্জী, … Read more

দুকড়িবালা দেবী ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে প্রথম সশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্ত নারী বিপ্লবী

দুকড়িবালা দেবী ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের অগ্নিকন্যা। রাজনীতিতে হাতেখড়ি হয় নিজের বোনপোর মাধ্যমে। তিনি রাজনৈতিক বই, অস্ত্র ইত্যাদি লুকিয়ে রাখতেন। এছাড়াও বিপ্লবীদের আশ্রয়ও দিতেন। ১৯১৭ সালে বিপ্লবীদের পিস্তল লুকিয়ে রাখার জন্য কারাবরণ করেন। তিনি অস্ত্র আইনে দন্ডিতা প্রথম সশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্ত নারী বিপ্লবী।[১] দুকড়িবালা দেবী-র জন্ম ও পরিচয়: ১৮৮৭ সালে ((জন্ম: বাংলা ১২৯৪, ৬ শ্রাবণ, ২১ জুলাই) ) … Read more

চারুশীলা দেবী ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের বিপ্লবী

চারুশীলা দেবী ছিলেন ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের নারী বিপ্লবী। তিনি ক্ষুদিরামের সাথে রাজনৈতিক কাজ করেছিলেন। এছাড়াও তিনি লবণ আইন অমান্য, সত্যাগ্রহ আন্দোলন সহ বিপ্লবীদের জন্য কাজ করেছিলেন। এজন্য জেল খাটতে হয়েছিল কয়েকবার।[১] জন্ম ও বৈবাহিক জীবন: চারুশীলা দেবী ১৮৮৩ সালে মেদিনীপুরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।  তিনি মেদিনীপুর স্থানীয় ছিলেন। পিতার নাম রাখালচন্দ্র অধিকারী, … Read more

ক্ষীরোদাসুন্দরী চৌধুরী ছিলেন যুগান্তর দলের বিপ্লবী

ক্ষীরোদাসুন্দরী চৌধুরী বর্তামান বাংলাদেশর ময়মনসিংহ জেলার একটি গ্রামে জন্মেছেন। বিয়ের পরেই রাজনীতিতে যুক্ত হন তিনি। তৎকালীন ব্রিটিশ সরকারের পেটোয়া বাহীনির চোখকে ফাকি দিয়ে বিপ্লবীদের বাঁচিয়েছিলেন। পুলিশ যাতে বিপ্লবীদের অবস্থান চিহ্নিত না করতে পারে সেজন্য কয়েক মাস পরে পরে বাসা পরিবর্তন করেছিলেন। সেসময়ের বিপ্লবীদের কাছে তিনি মা নামে পরিচিত ছিলেন।[১] জন্ম: ক্ষীরোদাসুন্দরী চৌধুরী ১৮৮৩ সালে ময়মনসিংহ … Read more

প্রতাপ উদ্দিন আহমেদ ছিলেন সাম্যবাদী শ্রমিক ও কৃষক আন্দোলনের নেতা

প্রতাপ উদ্দিন আহমেদ

প্রতাপ উদ্দিন আহমেদ (ইংরেজি: Pratap Uddin Ahmed, ২৫ জুন ১৯৩০ – ১৪ মার্চ ১৯৯৮) ছিলেন সাম্যবাদী শ্রমিক ও কৃষক আন্দোলনের নেতা, সাম্যবাদী বিপ্লবী, স্বৈরতন্ত্র ও সামরিক শাসন বিরোধী লড়াকু যোদ্ধা। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি বাংলাদেশের গনতান্ত্রিক আন্দোলন ও শ্রমিক আন্দোলনে একজন অবিসংবাদিত নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। শ্রমিক, কৃষক, মেহনতি মানুষের সংগ্রামে বলিষ্ঠ ভূমিকা নেওয়ার … Read more

You cannot copy content of this page