সামন্তবাদ হচ্ছে দাসযুগের পরে মানুষ কর্তৃক মানুষের উপর শোষণের এক রূপ

সামন্তবাদ

সামন্তবাদ বা সামন্ততন্ত্র (ইংরেজি: Feudalism) হচ্ছে দাসমালিকদের যুগের পর, দাস-প্রথার স্থলে মানুষ কর্তৃক মানুষের উপর শোষণের এক সামাজিক আর্থিক নতুন রূপ। সামন্তবাদ সমগ্র মধ্যযুগ ধরে প্রচলিত ছিল আর এটির বিকাশের সর্বশেষ স্তর ছিল ভূমিদাস-প্রথা। সামন্তবাদ তুলনামূলকভাবে বিকাশের এক দীর্ঘ প্রক্রিয়ার অধীনস্থ ছিল। সামন্তবাদী ব্যবস্থায় বিশাল কৃষক সাধারণ সামন্ত-ভূম্যধিকারীদের (barons) এক ক্ষুদ্র দল দ্বারা শোষিত হতো। … Read more

দাস সমাজ হচ্ছে শোষণমূলক সমাজ পদ্ধতির একটি প্রাক-পুঁজিবাদী রূপ

দাস সমাজ

দাস সমাজ বা দাস-মালিকদের সমাজ বা দাসত্ব (ইংরেজি: Slavery) হচ্ছে শোষণমূলক সমাজ পদ্ধতির একটি প্রাক-পুঁজিবাদী রূপ। আদিম সাম্যবাদী সমাজের অবক্ষয়ের সাথে সমাজে শোষক ও শোষিতের বিভক্তি দেখা দেয়। এমন কিছু লোকের আবির্ভাব ঘটে যারা অন্যের শ্রমের ফল ভোগ করে বেঁচে থাকে। এক শ্রেণি কর্তৃক অপর শ্রেণির উপর শোষণ – এটাই শ্রেণি-বিভক্ত সমাজের বিকাশের বিভিন্ন স্তরকে … Read more

শ্রমের সামাজিক বিভাগ হচ্ছে বিশেষীকৃত পণ্য উৎপাদনের কাঠামোগত ভিত্তি

শ্রমের সামাজিক বিভাগ

শ্রমের সামাজিক বিভাগ (ইংরেজি: Social division of labor) হচ্ছে শিল্প, খামার এবং শ্রমিকদের পেশা অথবা কাজের প্রযুক্তিগত বিভাগের মধ্যে বিভক্ত বিশেষীকৃত পণ্য উত্পাদনের সামাজিক কাঠামোগত ভিত্তি। আদিম যুগে ক্রমবিকাশের পথ ধরে মানুষ অত্যন্ত ধীর গতিতে অগ্রসর হচ্ছিলো, কিন্তু তা সত্ত্বেও অগ্রগমন ঠিকই ঘটছিলো। মানব সমাজ কোনো সময়ই স্থাণু অবস্থায় বসে থাকেনি। হাতিয়ার-পত্র ধীর গতিতে, কিন্তু … Read more

আদিম সাম্যবাদ হচ্ছে শিকার-সংগ্রহকারীদের উপহারের অর্থনীতিকে বর্ণনার উপায়

আদিম সাম্যবাদ

আদিম সাম্যবাদ বা আদিম গোষ্ঠীবদ্ধ সাম্যবাদ বা আদিম গোষ্ঠীবদ্ধ সমাজ (ইংরেজি: Primitive clan communism) হচ্ছে ঐতিহাসিক কাল জুড়ে শিকার-সংগ্রহকারীদের উপহারের অর্থনীতিগুলিকে বর্ণনা করার একটি উপায়, যেখানে সম্পদ ও সম্পত্তি সংগ্রহ ও একত্রিত করা হয় একটি গোষ্ঠীর সমস্ত সদস্যের সাথে এবং সেগুলোকে ব্যক্তিগত প্রয়োজন অনুসারে ভাগ করে নেওয়া হয়। ক্রমবিকাশের প্রাথমিক স্তরগুলোতে অত্যন্ত কঠিন অবস্থাধীনে মানুষকে … Read more

মার্কসবাদী শ্রেণি তত্ত্ব হচ্ছে মার্কস ও এঙ্গেলস প্রণীত সামাজিক শ্রেণি সংক্রান্ত বীক্ষা

মার্কসবাদী শ্রেণি তত্ত্ব

মার্কসবাদী শ্রেণি তত্ত্ব বা মার্কসীয় শ্রেণি মতবাদ (ইংরেজি: Marxist class theory) হচ্ছে কার্ল মার্কস ও ফ্রিডরিখ এঙ্গেলস প্রণীত সামাজিক শ্রেণি সংক্রান্ত মার্কসবাদী বিশ্ববীক্ষা। মার্কসবাদীরা মনে করে উৎপাদন ব্যবস্থার বিকাশের একটি বিশেষ স্তরে শ্রেণির জন্ম হয়েছিল। উৎপাদন ব্যবস্থা পরিবর্তনের সাথে সাথে শ্রেণির মধ্যেও পরিবর্তন ঘটে। শ্রেণি বিভক্ত সমাজে প্রতিটি মানুষই একটি শ্রেণির সদস্য হিসেবে বসবাস করে। … Read more

শ্রেণিহীন সমাজ হচ্ছে এমন সমাজ যেখানে কেউ সামাজিক শ্রেণিতে থাকে না

শ্রেণিহীন সমাজ

শ্রেণিহীন সমাজ বা শ্রেণীবিহীন সমাজ (ইংরেজি: Classless society) শব্দটি এমন একটি সমাজকে বোঝায় যেখানে কোনও সামাজিক শ্রেণিতে কেউ জন্মগ্রহণ করে না। এই ধরনের সমাজে শ্রেণির মর্যাদার উত্তরাধিকার হিসাবে অনুপস্থিত থাকে। শ্রেণিহীন সমাজতান্ত্রিক সমাজ নির্মাণ করবার লক্ষ্যেই অক্টোবর বিপ্লব সংঘটিত হয়। ১৯১৭ সালের অক্টোবর মাসে সংঘটিত রুশ বিপ্লব মানব জাতির ইতিহাসে এক নয়া অধ্যায়ের সূচনা করে। … Read more

সর্বহারা একনায়কত্ব থেকেই নির্মিত হয়েছে সমাজতন্ত্র ও সাম্যবাদের পথ

সর্বহারা শ্রেণির একনায়কত্ব

সর্বহারা শ্রেণির একনায়কত্ব (ইংরেজি: Proletarian dictatorship) হচ্ছে সেই ক্ষমতা যা শ্রেণিহীন সমাজতান্ত্রিক সমাজ হতে সাম্যবাদী সমাজের নির্মাণকর্ম সম্পাদন করে। সকল পুঁজিবাদী দেশেই শাসন-ক্ষমতা থাকে বুর্জোয়া শ্রেণিরই হাতে। সরকারের রূপ যাই থাক না কেন তা অপরিবর্তনীয় ভাবে বুর্জোয়া শ্রেণির একনায়কত্বকে আড়াল করেই রাখে। বুর্জোয়া রাষ্ট্রের অভীষ্ট হলো পুঁজিবাদী শোষণকে রক্ষা করা, কল-কারখানা-ফ্যাক্টরীর উপর বুর্জোয়া শ্রেণির ব্যক্তিমালিকানা, … Read more

দুই বিশ্ব ব্যবস্থা হচ্ছে স্নায়ুযুদ্ধ-পূর্ব সময়ের পুঁজিবাদ ও সমাজতন্ত্রের সংগ্রাম

দুই বিশ্ব ব্যবস্থা

দুই বিশ্ব ব্যবস্থা (ইংরেজি: Two world system theory) হচ্ছে স্নায়ুযুদ্ধ-পূর্ব সময়ের পুঁজিবাদ ও সমাজতন্ত্র, দুই ব্যবস্থার, অর্থাৎ দুই সমাজ পদ্ধতির মধ্যেকার সংগ্রাম। বিশ শতকের শুরুতে পুঁজিবাদী দেশসমূহে ঘটেছে নজিরবিহীন ধ্বংস আর ভাঙন। ১৯২৯ সালের শরৎকাল থেকে অদৃষ্টপূর্ব গভীরতা ও প্রবলতা সম্পন্ন এক সংকট এসব দেশকে পর্যুদস্ত করছে। এই সংকট তার প্রচণ্ডতার দিক থেকে, দীর্ঘস্থায়িত্বপূর্ণ প্রকৃতির … Read more

সমাজতান্ত্রিক বিনির্মাণের সম্পর্ক জড়িত রাজনৈতিক অর্থনীতি অধ্যয়নের সংগে

সমাজতান্ত্রিক বিনির্মাণের সম্পর্ক

সমাজতান্ত্রিক বিনির্মাণের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাজনৈতিক অর্থনীতি অধ্যয়নের (ইংরেজি: The relationship of socialist construction with political economy) সংগে বিরাজমান। আমরা জানি, পুঁজিবাদকে প্রতিস্থাপন করেই আসে সমাজতন্ত্র। সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থায় সমাজের উৎপাদন সম্পর্কসমূহ রূপ-কাঠামোগত দিক দিয়েই পুঁজিবাদী ব্যবস্থার উৎপাদন-সম্পর্কসমূহ থেকে সামগ্রিকভাবে ভিন্ন। এই নতুন সম্পর্কসমূহকে রাজনৈতিক অর্থনীতি কি অবশ্যই অধ্যয়ন করবে? স্বভাবতই একে তা করতে হবে। লেনিন দেখিয়ে … Read more

রাজনৈতিক অর্থনীতি অধ্যয়নের পরিধি পুঁজিবাদ থেকে সমাজতন্ত্রে উত্তরণ অবধি

রাজনৈতিক অর্থনীতি অধ্যয়ন

রাজনৈতিক অর্থনীতি অধ্যয়নের পরিধি (ইংরেজি: Scope of the study of political economy) হচ্ছে পুঁজিবাদ থেকে সমাজতন্ত্রে উত্তরণ অবধি। শ্রমজীবী জনগণের নির্মম শোষণের উপর প্রতিষ্ঠিত পুঁজিবাদী ব্যবস্থা ইতিহাসের মঞ্চ থেকে স্বেচ্ছায় বিদায় নেবে না। উপনিবেশসমূহের কৃষক ও শ্রমজীবী মৌলিক জনগণের সাথে মৈত্রীর উপর নির্ভর করে, শ্রমিক শ্রেণির বীরত্বপূর্ণ বিপ্লবী সংগ্রামই কেবল পুঁজিবাদের উচ্ছেদ ও বিশ্বব্যাপী সমাজতন্ত্রের … Read more

error: Content is protected !!